বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩১st মার্চ ২০১৯

সুনামগঞ্জরে স্বাধীনতা সংগ্রামরে উপর গীতআিলখ্যে ‘স্বাধীনতা উপত্যকায় মুক্তরি লড়াই’ এর প্রর্দশনী আগমীকাল


প্রকাশন তারিখ : 2019-03-30

স্বাধীনতা উপত্যকায় মুক্তরি লড়াইজল জছেনার জনপদ সুনামগঞ্জরে শল্পি-সংস্কৃতরি বাতঘির জলো শল্পিকলা একাডমেি নর্মিাণ করছেে সুনামগঞ্জরে স্বাধীনতা সংগ্রামরে উপর গীতআিলখ্যে ‘স্বাধীনতা উপত্যকায় মুক্তরি লড়াই’।
বাংলাদশে শল্পিকলা একাডমেরি জাতীয় নাট্যশালা ময়িনায়তনে ৩১ র্মাচ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রযোজনাটরি ৫ম প্রর্দশনী অনুষ্ঠতি হব।ে ইতোমধ্যে সুনামগঞ্জে বহুল প্রশংসতি সৃজনশীল এই প্রযোজনাটরি চারটি প্রর্দশনী অনুষ্ঠতি হয়ছে।ে ঢাকায় প্রযোজনাটরি এটি প্রথম প্রর্দশনী। টকিটি পাওয়া যাবে প্রর্দশনীর র্পূবে টকিটি কাউন্টার।ে
মো. সবরিুল ইসলাম-এর পরকিল্পনা, জাহাঙ্গীর আলম-এর রচনা এবং দবোশীষ তালুকদার শুভ্র এর নর্দিশেনায় নর্মিতি গীতআিলখ্যেটরি সংগীত পরচিালনা করছেনে দবেদাস চৌধুরী রঞ্জন ও অঞ্জন চৌধুরী। শল্পি নর্দিশেনা দয়িছেনে আহমদে মঞ্জুরুল হক চৌধুরী।
প্রযোজনাটরি র্সাবকি ব্যবস্থাপনায় ছলিনে জলো শল্পিকলা একাডমেরি সাধারণ সম্পাদক মো. শামছুল আবদেীন এবং র্সাবকি তত্ত্বাবধান করছেনে সুনামগঞ্জ জলোর জলো প্রশাসক ও জলো শল্পিকলা একাডমেরি সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ।

নাট্যকারের কথা :
মুক্তিযুদ্ধের উপর এরকম একটি কাজ করবো ভাবিনি। তবে মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ইতোপূর্বে বেশ কিছু কাজ করেছিলাম। এ কাজটি হঠাৎ করে পূর্বপরিকল্পনা ছাড়াই করতে হয়েছে। যদিও আমরা বলেছি সুনামগঞ্জের স্বাধীনতা সংগ্রামের উপর নির্মিত গীতিআলেখ্য বাস্তবিক অর্থে এর সাথে যুক্ত রয়েছে ইংরেজ শাসন-শোষণ থেকে শুরু করে পরবর্তী সময়ের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস। আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামের মূল পর্বে পৌঁছাতে অতিক্রম করা প্রতিটি ধাপ বা সিঁড়ি। সুনামগঞ্জের স্বাধীনতা সংগ্রামের পূর্ণাঙ্গ ইতিহাস অনেক দীর্ঘ। এই দীর্ঘ ইতিহাস রচনার দৃষ্টতা কিংবা সাহস কোনটাই আমার নেই। চেষ্টা করেছি মহান মুক্তিযুদ্ধের অবিকৃত সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তুলে ধরার। নাটকীয়তার স্বার্থে প্রাসঙ্গিকভাবেই রূপক অর্থে কিছু বিষয় যুক্ত করতে হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সুনামগঞ্জের লোমহর্ষক কিছু ঘটনাবলী স্পর্শ করতে চেষ্টা করেছি। পঁচাত্তরের ১৫ আগষ্ট জাতির জনকের সপরিবারে হত্যা এবং পরবর্তীতে সরকারের পালাবদলের বিষয়টি নিয়ে এসেছি। এই গীতিআলেখ্যের মাধ্যমে বর্তমান প্রজন্মের কাছে আমাদের  মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস তুলে ধরা এবং ধারণ করানোই মূল উদ্দেশ্য।
গীতিআলেখ্য রচনায় মূল পরামর্শদাতা এবং “স্বাধীনতা উপত্যকায় মুক্তির লড়াই” নামকরণে ভূমিকা রাখায় সুনামগঞ্জ জেলার প্রাক্তন জেলা প্রশাসক বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মো.সাবিরুল ইসলাম এঁর প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞ। এই গীতিআলেখ্যে  সঙ্গীত, নাটক, নৃত্য, আবৃত্তি ও নেপথ্যে যারা কাজ করেছেন সবার প্রতি অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। 
জাহাঙ্গীর আলম 
 

নির্দেশকের কথা :
দেশপ্রেমের উন্মাদনায় একদল তরুণের দায়িত্বশীলতার চূড়ান্ত ফসল এই স্বাধীনতা উপত্যকায় মুক্তির লড়াই। আগের রাতের আহ্বানে সুনামগঞ্জের ছয় থেকে সাতটি থিয়েটারের ছেলে মেয়ের একটি দল হয়ে যাওয়া আর তিন দিন তিন রাতের জন্যে মঞ্চে ক্যাম্পিং করে একটা প্রযোজনা দাঁড় করাতে পারার গল্পের সাথে কতশত গল্প তৈরি হয়ে যায়। 
প্রযোজনাটি নির্মাণ হয়েছে অনেকটা খেলার ছলে ঘাম ঝরানো পরিশ্রমে। মুক্তিযুদ্ধে সুনামগঞ্জের বাছাইকৃত কিছু ঘটনার তালিকা নিয়ে আমরা কখনো গানকে আকড়ে ধরে এগিয়েছি। তখন মনে হয়েছে প্রযোজনাটি গীতি আলেখ্য। আবার কখনো ধারাভাষ্য বা অভিনয় হয়েছে আমাদের অন্যতম বাহন। কোন এক সময় মঞ্চে নাটক বা গীতিআলেখ্য ঝাঁপসা হয়ে যায়; যেন মঞ্চে মুক্তিযুদ্ধে প্রামাণ্যচিত্র দেখতে পাই। কিছুতেই কিছু আমাদের হাতে থাকে না। শিল্পের রঙ, স্বাদ বারবার বদলাতে থাকে। সকালের নাশতার পরের গল্প দুপুরের খাবারের পর বদলে যায়। একটা সময় আমরা অভিনয়েই আস্থা রাখি গান আর ধারাভাষ্যের সমন্বয়ে। মুক্তিযুদ্ধে সুনামগঞ্জের ঘটনাপ্রবাহ, বাংলাদেশের জন্মের ইতিহাস, আর মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সংকট নিয়ে আমাদের যে প্রযোজনাটি শেষতক দাঁড়িয়েছে তাকে আমরা নাট্য প্রযোজনাই বলছি। 
সুনামগঞ্জে তিনবার মঞ্চায়নের পর যখন আমরা স্বাধীনতা উপত্যকায় মুক্তির লড়াই নিয়ে ঢাকার মঞ্চের দিকে এগুচ্ছি তখন একজন নির্দেশকের ভূমিকায় দাঁড়িয়ে আমি এবং আমরা সম্পূর্ণ দল ভাবী এই প্রযোজনার সবটুকুই আপনাদের জন্য। প্রযোজনার সফলতা, ব্যার্থতা আর স্বার্থকতা ন্যাস্ত আপনাদের বিবেচনার ওপর। 
দেবাশীষ তালুকদার শুভ্র


Share with :

Facebook Facebook